জামাই বাড়ি থেকে ফেরার সময় দুর্ঘটনায় শ্বাশুড়ী নিহত। দুইশিশুসহ আরো চারজন গুরুতর আহত

নড়াইলে সড়ক দুর্ঘটনায় সাফিয়া আক্তার (৫৪) নামে এক মহিলা নিহত হয়েছেন। তিনি মেয়ের শ্বশর  বাড়ি থেকে নিজবাড়ি যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার বাগডাঙ্গা গ্রামে ফিরছিলেন।
এসময় দুই শিশুসহ আরো চারজন গুরুতর আহত হয়েছে। সোমবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে নড়াইল-যশোর সড়কের করিমপুর এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও নিহতের বোন ঝর্না আক্তার জানান, নিহত সাফিয়া আক্তার তার কয়েকজন আত্মীয় স্বজন নিয়ে মেয়ের শ্বশুর  বাড়ি নড়াইল সদর উপজেলার তুলারামপুর গ্রামের গোলাম রসুলের বাড়ি বেড়াতে এসেছিলেন।
বেড়ানো শেষে সোমবার (৯ নভেম্বর) সন্ধ্যার আগে ইজিবাইকযোগে যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার বাগডাঙ্গা গ্রামে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে করিমপুর এলাকায় পৌছাঁলে যশোর থেকে নড়াইলগামী একটি যাত্রীবাস ইজিবাইককে জোরে ধাক্কা দেয়।
এতে ইজিবাইকের যাত্রীরা ছিটকে রাস্তার ওপর পড়ে যায়। তুলারামপুর হাইওয়ে পুলিশসহ স্থানীয় লোকজন তাদেরকে উদ্ধার করে দ্রুত নড়াইল সদর হাসপাতালে নিয়ে যান।
 সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক বিভাষ চন্দ্র সাফিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহত সাফিয়া বাগডাঙ্গা গ্রামের নূর মিয়ার স্ত্রী।
এছাড়া গুরুতর হয়েছেন বাঘারপাড়া উপজেলঅর অদিপুরগ্রামের রোকনের স্ত্রী নূরজাহান (৪০), রোকনের মেয়ে হাবিবা (১০),  জিহাদের স্ত্রী তামান্না (২৫), ও মানিকের কন্যা সুমাইয়া (৩বছর)।
এদের মধ্যে তামান্নার অবস্থায় গুরুতর হওয়ায় তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।
Please follow and like us: