সাতক্ষীরায় মাদক মামলায় দন্ডিত আসামী চার শর্তে থাকবেন বাড়িতে, কারাগারে নয়

সাতক্ষীরা প্রতিনিধিঃ

সাতক্ষীরায় মাদক মামলায় ৬ মাসের কারাদন্ডপ্রাপ্ত আসামী ইমাম হোসেন কারাগার নয়, থাকবেন বাড়িতে। ৪টি শর্তে তিনি আদালতের এই সুযোগ লাভ করেছেন।
আজ সোমবার সাতক্ষীরার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (২য় আদালত) ইয়াসমিন নাহার এই রায় প্রদান করেন। এসময় আসামী ইমাম হোসেন আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন।
২০১৮ সালে ১ কেজি গাঁজা সহ সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ভাদড়া গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে ইমাম হোসেন পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন। এই মামলায় তিনি দীর্ঘদিন জেলে আটক ছিলেন। পুলিশ তার বিরুদ্ধে চার্জশীট দেয়। বিচারে ইমাম হোসেনকে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ৬ মাসের কারাদন্ড দেন। তবে ৪টি শর্তে তিনি কারাগারে না থেকে বাড়িতে থাকতে পারবেন বলে আদালতের নির্দেশনায় বলা হয়। শর্তগুলির মধ্যে রয়েছে প্রতি সপ্তাহে ১০টি করে গাছের চারা রোপন, এলাকায় মাদক বিরোধী প্রচার অভিযান চালানো, বাবা মায়ের সেবা করা এবং মাদক গ্রহন না করা। প্রবেশন আইনের মাধ্যমে এই বিষয়টি ৬ মাস পর নিষ্পত্তি করা হবে।
এই মামলায় অংশ নেওয়া আইনজীবী মোঃ সাইফুল্লাহ বলেন, আদালত একটি যুগান্তকারী রায়ে সাজাপ্রাপ্ত আসামীকে ৪টি শর্তে বাড়িতে থাকার সুযোগ করে দিয়েছেন। অপরদিকে সাজাপ্রাপ্ত আসামী ইমাম হোসেন জানান, তিনি এই রায়ে অত্যন্ত খুশী। শর্ত অনুযায়ী তিনি মাদক বিরোধী প্রচারনাসহ সবগুলি কাজ করে আদালতকে অবহিত করবেন।

Please follow and like us: