বঙ্গবন্ধুর আহবানে ১৮ হাজার নেতা কর্মী মুক্তিযুদ্ধে জীবন দিয়েছিলেন —— মেয়র লিটন

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ
শিক্ষা, শান্তি প্রগতির ধারক ও বাহক বাংলাদেশ ছাত্রলীগের ৭৩ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী স্থলবন্দর বেনাপোলে কেক কাটা, আনন্দ শোভাযাত্রা, আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে পালন করে বেনাপোল পৌর ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। সোমবার বিকালে বেনাপোল পৌর ছাত্রলীগের আয়োজনে এক বর্নঢ্য শোভাযাত্রা বের হয় আওয়ামী দলীয় কার্যালয় এর সামনে থেকে। এরপর বন্দরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন শেষে শোভা যাত্রাটি দলীয় কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। এসময়  বাদ্য যন্ত্রের বাজনায়  শোভাযাত্রাটি আরো শোভা বর্ধন করে।
বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগ দলীয় কার্যালয়ে পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আছাদুজ্জামান তনির সভাপতিত্বে প্রধান অথিতি মেয়র লিটন বলেন, ১৯৭৫ সালের পরে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগকে নিঃশ্বেষ এর জন্য বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করতে লাগল পাকিস্থানী প্রেতাতœরা। বিএনপির জিয়াউর রহমান এর ছড়ানো   অস্ত্রের ঝনঝনানিতে ছাত্র রাজনীতি অপরাজনীতিতে পরিণত হলো। আমাদের পুর্বপুরুষরাও অনেকেই এই রাজনীতির শিকার হলেন। অনেকে পঙ্গুত্ব বরন করেছে। অনেকে জীবন দিয়ে চলে গেছেন। বঙ্গবন্ধু পল্টনের বিশাল জনসভার  ভাষনে  বলেছিলেন বাংলাদেশের ইতিহাস ছাত্রলীগের ইতিহাস. ছাত্রলীগের ইতিহাস বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস। তিনি বলেছিলেন আমার ছাত্রলীগ মহান মুক্তিযুদ্ধে আমাদের আহবানে সাড়া দিয়ে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়ে ছিলেন। প্রায় ১৮ হাজার ছাত্রলীগ নেতা কর্মী মুক্তিযুদ্ধে জীবন দিয়েছিলেন। তাই ছাত্রলীগ এর সকল নেতাকে হতে হবে আদর্শবান সংগঠক। কোন দাঙ্গা হাঙ্গামা করা যাবে না।  পিতার বয়সী মানুষকে সন্মান করতে হবে। কোন অন্যায় অত্যাচার রাহাজানিতে জড়ানো যাবে না।ছাত্রলীগের ।ঐতিহ্য ধরে রাখতে সৎ ও নিষ্ঠাবান হয়ে কাজ করতে হবে।
উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান বলেন, ছাত্রলীগের নেতা কর্মীদের নামে যেন কোন বদনাম না হয়। সেই ভাবে কাজ করতে হবে। আজ আমাদের লজ্জা লাগে শার্শার ছাত্রলীগ নেতা ইয়াবা ফেনসিডিল সেবন এর জন্য বহিস্কার হয়। তাই সকল ছাত্রলীগ নেতাকে মাথা উচু করে দাঁড়িয়ে ছাত্র রাজনীতি করতে হবে।
আলোচনা সভা ও কেককাটা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন শার্শা উপজেলা ছাত্রলীগের  সাবেক সভাপতি  রুহুল কুদ্দুস ভুইয়া, সাবেক সহসভাপতি ও বেনাপোল প্যানেল মেয়র সাহাবুদ্দিন মন্টু, উজ্জ্বল উপস্থিতি ও বক্তব্য রাখেন সাবেক উপজেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি ও সাবেক নিজামপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলীম রেজা বাপ্পী, বেনাপোল পৌর আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক সুকুমার দেবনাথ, সাবেক শার্শা উপজেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি ফারুক হোসেন উজ্জল, সাবেক যশোর জেলা ছাত্রলীগের সদস্য কামরুজ্জামান তরু, শার্শা উপজেলা ছাত্রলীগের  যুগ্ম সাধারন সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সজল,সাংগঠনিক সম্পাদক দ্বিন ইসলাম, প্রচার সম্পাদক এনামুল হক মুকুল, দপ্তর সম্পাদক আরিফুর রহমান,  যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আশিকুজ্জামন এ্যানি, রোকনুজ্জামান পৌর ছাত্রলীগের সদস্য রাশেদুজ্জামান রয়েল প্রমুখ।
অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বেনাপোল পৌর ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক নুর ইসলাম ।

Please follow and like us: