নড়াইলে চতূর্থ শ্রেনীর শিশুকে ধর্ষনের অভিযোগে প্রতিবেশি পঞ্চাশউর্দ্ধ ২সন্তানের জনক গ্রেফতার

নড়াইল প্রতিনিধিঃ 
চকলেটের প্রলোভনে নড়াইলে চতূর্থ শ্রেনীর শিশুকে ধর্ষনের অভিযোগ পাওয়া গেছে প্রতিবেশি পঞ্চাশউর্দ্ধ ২সন্তানের পিতার বিরুদ্ধে। নির্যাতিতা শিশুটিকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রবিবার (২১মার্চ) বিকেলে নড়াইল পৌরসভার ভাটিয়া এলাকার ঐ ঘটনায় অভিযুক্ত দুই সন্তানের জনক মুনতাজকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। স্বজনরা এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করেছেন।
পুলিশ ও নির্যাতিতার স্বজনরা জানায়, ভুক্তভোগী মেয়েটি তার ছোট বোনকে মাদ্রাসায় পৌছে দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে প্রতিবেশি মুনতাজ তাকে চকলেট দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে নিজের বাড়ি নিয়ে যায়। সেখানে বাড়ির অন্য সদস্যরা না থাকায় এই সুযোগে নির্জন ঘরে মুনতাজ শিশুটিকে ধর্ষন করে। এক পর্যায়ে শিশুটি সেখান থেকে ছাড়া পেয়ে কাঁদতে কাঁদতে বাড়ি গিয়ে স্বজনদের জানালে স্বজনরা চিকিৎসার জন্য নড়াইল সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। এদিকে বিষয়টি জানাজানি হলে বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসী মুনতাজকে গনপিটুনি দিয়ে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ অভিযুক্তকে আটক করেছে। গনপেটানিতে আহত মুনতাজকে পুলিশ হেফাজতে সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। শিশুটির স্বজনরা এঘটনার দৃষ্টান্ত মূলক বিচার দাবি করেছেন-
নড়াইল সদর হাসাপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ আ ফ ম মুশিউর রহমান বলেন, হাসপাতালে শিশুটির ডাক্তারি পরিক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের পাশাপাশি চিকিৎসা চলছে । পরিক্ষা শেষে ধর্ষনের বিষযটি জানা যাবে।
এ ব্যাপারে পুলিশের কঠোর অবস্থানের কথা ব্যক্ত করে নবাগত পুলিশ সুপার প্রবির কুমার রায় বলেন, আমরা ধর্ষককে গ্রেপ্তার করেছি, তদন্ত চলছে, দোষী প্রমানিত হলে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
এ ঘটনায় রবিবার রাতে নির্যাতিতার বাবা বাদি হয়ে মুন্তাজের বিরুদ্ধে সদর থানায় ধর্ষন মামলা দায়ের করেছেন।
Please follow and like us:

আপনার মন্তব্য লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here