নড়াইলে শিক্ষকের নির্যাতনে স্বিকার শিশু শিক্ষার্থী মুশফিকুর রহমান স্বাধীন

নড়াইলে শিক্ষকের নির্যাতনে স্বিকার শিশু শিক্ষার্থী মুশফিকুর রহমান স্বাধীন

-নড়াইল প্রতিনিধিঃ
নড়াইলের সীমাখালী গ্রামের রাসেল সেতুর পূর্বপার্শ্বে মারকাজুল ইসলাম পরিচালিত মাদরাসা ওমর ইবনে খাত্তাব (রা:) ও এতিমখানার শিক্ষক শের আলীর বিরুদ্ধে শিশু নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। নির্যাতনে স্বিকার হয়েছে শিক্ষার্থী মুশফিকুর রহমান স্বাধীন নামে (৯) এক ছাত্র। বুধবার বিকাল ৫টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আহত শিক্ষার্থীর লস্কারপুর গ্রামের মোঃ মাহাবুবুর রহমানের ছেলে।
জানাগেছে, মুশফিকুর রহমান স্বাধীনসহ উপস্থিত শিক্ষার্থীরা আসরের নামাজ শেষে উচ্চস্বরে কথা বলছিলেন। এসময় শিক্ষক শের আলী সকল শিক্ষার্থীকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে যখম করে। এর মধ্যে স্বাধীন গুরুতর আহত হয়
আহত মুশফিকুর রহমান স্বাধীন বলেন, অন্য ছেলেরা কথা বলছিলো আর হুজুর এসে আমাকে বীনা অপরাধে লাঠি দিয়ে মারছে। এসময় স্বাধীন তার পিঠের ক্ষত স্থান দেখায়।
স্বাধীনের বাবা মাহাবুবুর রহমান বলেন, শুধু আমার ছেলে হলে আমি বিচার চাইতামনা । এর আগেও এই মাদ্রাসা থেকে শিক্ষক শের আলীর নির্মম নির্যাতনে স্বীকার হয়ে অনেকেই পালিয়েছে। তিনি এ ঘটনার সুষ্ট বিচার দাবি করেন।
অভিযুক্ত শিক্ষক শের আলী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পোলাপানরা লাফালাফি করতে ছিল আমি ওই দেখে বাচ্ছাদের মেরেছি । তবে আহত শিক্ষার্থীকে আমি ইচ্ছা করে মারিনি অনিচ্ছায় তার গায়ে লেগে গেছে বলে তিনি দাবি করেন।
এ বিষয়ে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শওকত কবিরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই তবে আমি এখনি খবর নিচ্ছি।

Leave a Reply