সাতক্ষীরার কলারোয়ায় হত্যা চেষ্টা মামলার আসামী কর্তৃক বাদীর জীবন নাশের হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় হত্যা চেষ্টা মামলার আসামী কর্তৃক বাদীর জীবন নাশের হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

  • সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ঃ সাতক্ষীরার কলারোয়ায় হত্যা চেষ্টা মামলা আসামীরা জামিনে মুক্তি পেয়ে মামলা তুলে নিতে বাদী ও তার পরিবারের সদস্যদের প্রকাশ্যে খুন জখমসহ জীবন নাশের হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের আব্দুূল মোতালেব মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে কলারোয়া উপজেলার বাটরা গ্রামের ইনছাপ আলীর স্ত্রী মোছাঃ মাছুরা খাতুন এই অভিযোগ করেন।
    লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, জমিজমা সংক্রান্ত পূর্ব শত্রæতার জেরধরে একই এলাকার মৃত. আফাজ উদ্দিনের ছেলে আমজেদ আলী সরদারের সাথে আমার স্বামীর বিরোধ চলে আসছিল। কলারোয়ার বাটরা মৌজার জে এল ৯৫ এর ১১০৭ দাগে ক্রয়কৃত সাড়ে ৮ শতক জমি নিয়ে আদালতে ১৪৫ ধারায় মামলা করলে আদালত নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। কিন্তু আমজেদ গং আদালতের নির্দেশনা উপেক্ষা করে উক্ত জমিতে ঘেরাবেড়া সহ বিভিন্ন গাছ কেটে নেওয়ার চেষ্টা করলে বাধা দেয়ায় তারা আমার স্বামীসহ আমাদের খুন জখমসহ বিভিন্ন হুমকি ধামকি প্রদর্শন করে আসছিল। গত ২৭ জুলাই বেলা সাড়ে ৩টার দিকে আমজেদ, তার ছেলে ফারুক ও মামুন হোসেন ধারালো দা এবং লাঠি সোটা নিয়ে বাড়িতে ঢুকে আমার স্বামীর উপর হামলা করে। এসময় হত্যার উদ্দেশ্যে ধারালো দা দিয়ে আমার স্বামীর মাথায় আঘাত করে আমজেদ। আমার মেয়ে ও আমি স্বামীকে রক্ষা করতে গেলে আমাদেরও মারপিট করে একটি ঘরে আটকে রাখে। আমজেদের দায়ের কোপে রক্তাক্ত জখম হয়ে আমার স্বামী ছটফট করলেও তাকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে দেয়নি। পরে ৯৯৯ ফোন দিলে কলারোয়া থানা পুলিশ এসে আমাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। এবিষয়ে কলারোয়া থানায় একটি জিআর মামলা হয়( নং-৩১/২৮২)।
    মাছুরা খাতুন অভিযোগ করে বলেন, আমার স্বামী হাসপাতালে থাকার সুযোগে আমজেদ গং আমাদের সম্পত্তিতে থাকা মূল্যবান গাছপালা কেটে নিয়ে যায়। এবং মামলা করায় তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আমাদেরকে স্বপরিবারে হত্যার হুমকি দেয় । এ হুমকির ঘটনায় ৩০ জুলাই কলারোয়া থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করি। জিআর মামলার আসামীরা গত ২৩ আগষ্ট আদালত থেকে জামিনে মুক্তি পেয়ে মামলা তুলে নিতে খুন জখমসহ আমার পরিবারের সদস্যদের বিভিন্ন ধরনের হুমকি ধামকি প্রদর্শন করে যাচ্ছে। মামলা তুলে না নিলে আমার ১০ শ্রেণি পড়–য়া ছেলের চোখ তুলে নিবে এবং সুযোগ পেলে স্বামীকে হত্যা করে লাশ গুম করে দিবে ও পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের মারাত্মক ক্ষতি করবে বলে আমজেদ প্রকাশ্যে হুমকি প্রদর্শন করছে। ফলে আমজাদ গংদের হুমকিতে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বর্তমানে আমরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।
    তিনি আরো বলেন, আমজেদ গংয়ের হামলায় আমার স্বামী মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এসেছে। এখন তাদের হুমকিতে আমরা দিশেহারা হয়ে পড়েছি। আগেও একাধিকবার আমজেদ গং আমার স্বামীসহ আমাদের মারপিট করে বাড়িতে আটকে রাখে। এছাড়া প্রভাবখাটিয়ে আমাদের সম্পত্তিও দখলের পায়তার চালিয়ে যাচ্ছে।
    তিনি হত্যা প্রচেষ্টা মামলার আসামী আমজেদ গংয়ের দ্রæত গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও জীবনের নিরাপত্তা এবং সম্পত্তি রক্ষার দাবিতে সাতক্ষীরা পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

Leave a Reply