সাতক্ষীরার তিন‘শ বছরের ঐতিহ্যবাহী গুড় পুকুরমেলার উদ্বোধন

সাতক্ষীরার তিন‘শ বছরের ঐতিহ্যবাহী গুড় পুকুরমেলার উদ্বোধন

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ঃ সাতক্ষীরার তিন‘শ বছরের ঐতিহ্যবাহী গুড় পুকুর মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে। সাতক্ষীরার জেলা প্রশাসন ও পৌরসভার আয়োজনে বৃহস্পতিবার সকালে শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্কে অনুষ্ঠিত এ মেলার ফিতা কেটে উদ্বোধনী ঘোষনা করেন, প্রধান অতিথি সাতক্ষীরা সদর আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক এস.এম মোস্তফা কামাল, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পদোন্নতি প্রাপ্ত পুলিশ সুপার) ইলতুৎ মিশ, পৌর মেয়র তাজকিন আহমেদ চিশতি, আওয়ামীলীগ নেতা শেখ নুরুল হক, হরুন অর রশিদ, জেলা মহিলা আওয়ামীলেিগর সাধারন সম্পাদিকা ও মহিলা কাউন্সিলর জোছনা আরা, কাউন্সিলর শেখ আব্দুস সেলিম, ফিরোজ আহমেদ প্রমুখ।
এদিকে, মেলা উপলক্ষে শহর জুড়ে নেয়া হয়েছে নানা প্রস্তুতি। শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্ককে সাজানো হয়েছে নান্দনিক রূপে। এ পার্কের পুরো জায়গা জুড়ে থাকছে বিভিন্ন প্রকার তিন শতাধিক স্টল। এ মেলা চলবে ১৫ দিন ব্যাপী। এ উপলক্ষে জেলা প্রশাসন ও পৌরসভার পক্ষ থেকে ইতিমধ্যে সব ধরনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। মেলায় আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে কঠোর অবস্থানে থাকবে প্রশাসন। মেলা চলাকালীন সময়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ ও ম্যাজিস্ট্রেটের পাশাপাশি র‌্যাবের টহল, আনছার ভিডিপি, স্কাউট, রোভার স্কাউট ও স্থায়ী স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ থাকবে।
অন্যদিকে শহরের পলাশপোল হাইস্কুলের সামনে লৌহজাত সমগ্রী, বাঁশ ও বেতের তৈরি জিনিস পত্র এবং প্রাণ সায়ের খালের পশ্চিম তীরে কাঠের তৈরি আসবাব পত্রের পশরা বসেছে। এছাড়াও থাকছে বিভিন্ন প্রকার ফলজ, বনজ ও ভেষজ ও পাতা বাহার গাছের সমাহার।
উল্লেখ্য ঃ ২০০২ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর মেলা চলাকালিন একটি সার্কাসে ও সাতক্ষীরার রকসি সিনেমা হলে বোমা হামলার ঘটনা ঘটে। বোমা হামলায় নিহত হয় ৩ জন। আহত হয় অর্ধশতাধিক। এরপর থেকে মেলা হারিয়ে ফেলে তার ঐতিহ্য। মনসা ও বিশ্বকর্মা পূর্জা উপলক্ষে বাংলা সনের শেষ ভাদ্রে অনুষ্ঠিত হয় এ মেলা। মেলা বসে পৌর সভার পলাশপোল গুড় পুকুরের পাড়ে। গুড় পুকুরের নামানুসারে মেলার নামকরণ করা হয় “গুড় পুকুরের মেলা”।

জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
মোঃ শহিদুল ইসলাম (শহিদ)

Please follow and like us: