ওষুধ ব্যবসায়ীকে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা

পিরোজপুর সদর উপজেলার কামরুল শেখ নামের এক ওষুধ ব্যবসায়ীকে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

গত শনিবার সকাল ১০ টার দিকে পিরোজপুর সদর উপজেলার টোনা ইউনিয়নের পশ্চিম চলিশা গ্রামের তালুকদার বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে বলে জানান পিরোজপুর সদর থানার এসআই মো: জাফরুল হাসান। নিহত কামরুল শেখ (৩৫) পিরোজপুর সদর উপজেলার টোনা ইউনিয়নের চলিশা গ্রামের আব্দুল মান্নান শেখের পুত্র এবং চলিশ বাজারের মা মেডিকেল হলের মালিক। নিহত কামরুলের ভাই মাসুদ শেখ জানান, কয়েকদিন যাবত ধরে পিরোজপুর সদর উপজেলার সাতবেকুটিয়া গ্রামের আলতাফ শেখের পুত্র সাকিল বিভিন্ন সময়ে নিহত কামরুলের কাছে চাঁদা দাবী করে আসছিল। সকালে সাকিল কয়েকজন লোক নিয়ে কামরুলের দোকানে এসে চাঁদাদাবী করে হুমকি দিতে থাকে। এ সময় কামরুল চাঁদা দিতে রাজী না হওয়ায় সাকিলের তার লোকজন নিয়ে ছুড়ি দিয়ে কামরুরেল বুকে ও মাথায় আঘাত করে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে জখম করে। তখন কামরুল চিৎকার করলে স্থানীয়রা কামরুলকে বাঁঁচাতে এগিয়ে এলে সাকিল সহ অন্যরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা কামরুল কে উদ্ধার করে পিরোজপুর জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসলে ডাক্তার কামরুলকে মৃত ঘোষনা করে। পিরোজপুর জেলা হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. আরিফ হাসান জানান, নিহত কামরুলকে হাসপাতালে আনার আগেই তিনি মারা যান। অতিরিক্ত রক্ত ক্ষরনের কারনেরই তার মৃত্যু হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে। পিরোজপুর সদর থানার এসআই মো: জাফরুল হাসান জানান, টাকা-পয়সার লেনদেনের বিষয় নিয়েই এ ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিক ভাবে জানাগেছে। খবর পেয়েই পুলিশ ঘটনা স্থনে গিয়ে অভিযুক্তদের আটকের চেষ্টা করছে। এছাড়া কামরুলের উপরে যে ছুরি দিয়ে হামলা করা হয়েছে পুলিশ সেই ছুরিটি উদ্ধার করেছে। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের প্রস্তুতি চলছে।

Please follow and like us: