কোর্টের হাজতখানায় আসামির আত্মহত্যা।।

রাজবাড়ীতে কোর্টের হাজতখানায় বিচারাধীন অস্ত্র মামলার আলামিন মন্ডল (৩২) নামে এক আসামি গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

বৃহস্পতিবার (২৯ অক্টোবর) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। এর আগে ১৩ অক্টোবর রাজবাড়ী কারাগারে থাকা হাসমত শেখ নামের একজন ধর্ষণ মামলার আসামির মৃত্যু হয়।

নিহত আলামিন মন্ডল রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার মৌরাট ইউনিয়নের রূপিয়াট গ্রামের আজিজ মন্ডলের ছেলে।

রাজবাড়ী কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক মোঃ মাহবুবুর রহমান বিকালে আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, নিহত হাজতী আসামি আলামিন মন্ডল পাংশা থানার ২টি অস্ত্র ও ১টি মারামারির মামলায় আগস্ট মাসের ৩ তারিখ থেকে জেলা কারাগারে বন্দি ছিল। মামলার ধার্য তারিখ থাকায় বৃহস্পতিবার সকালে অন্যান্য আসামিদের সাথে তাকেও কারাগার থেকে কোর্ট হাজতে আনা হয়।

হাজিরার জন্য বেলা পৌনে ১১টার দিকে তাকে সঙ্গীয় অন্যান্য আসামিদের সাথে রাজবাড়ীর প্রথম যুগ্ম-দায়রা জজ আদালতে প্রেরণ করা হয়। হাজিরা শেষে দুপুর দেড়টার দিকে তাকে পুনরায় কোর্টের হাজতখানায় নিয়ে আসা হয়। কিছুক্ষণ পর জেলখানায় ফিরিয়ে নেয়ার জন্য কোর্ট হাজতের ইনচার্জ এটিএসআই ওমর শরীফ যখন আসামিদেরকে ডাকে তখন আলামিন মন্ডলের কোন সাড়া পাওয়া যায় না।

পরে সে একজন কনস্টেবলকে নিয়ে হাজতখানার ভিতরে ঢুকে দেখতে পায় পশ্চিম পাশের টয়লেটের মধ্যে নিজের পরিধেয় লুঙ্গির পাড় ছিঁড়ে পানির লাইনের অ্যাঙ্গেলের সাথে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

তাৎক্ষণিক বিষয়টি জানানোর পর আদালতের ভারপ্রাপ্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গেছেন।

এছাড়াও জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে রাজবাড়ী থানায় অপমৃত্যু দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে। কোর্ট হাজতের ইনচার্জ এটিএসআই ওমর শরীফ অপমৃত্যু মামলার বাদী।

Please follow and like us: