পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় যাত্রীর ভোগান্তি 

স্টাফ করেসপন্ডেন্টঃ
রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া থেকে আসা মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় ঢাকাগামী মানুষের চাপ বাড়ছে। সেই সাথে বেড়ে চলেছে যাত্রীদের অসহনীয় ভোগান্তীর। দেশের সকল শপিং মল খুলে দেয়ার নির্দেশ হওয়ার পর থেকেই মূলত যাত্রীদের ঢাকায় ফেরত আসতে দেখা গেছে। কিন্তু সর্বাত্বক লকডাউনে প্রায় সব কিছু খুলে দিলেও আগামী ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত সমস্ত নৌযান ও গণপরিবহন বন্ধের নির্দেশ এখনো বলোবৎ রয়েছে। ফলে যাত্রী সাধারণকে মেনে নিতে হচ্ছে ভোগান্তির স্বীকার।
সোমবার ২৬ এপ্রিল সকালে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ঘাট হতে ফেরিতে অতিরিক্ত যাত্রী আসতে দেখা গেছে। যদিও ফেরিতে যাত্রী পারাপারের নির্দেশনা সরকারের পক্ষ থেকে দেয়া হয়নি। হাতে গোনা তিন থেকে চারটি ফেরি চলাচলের নির্দেশ রাখা হয়েছে কেবল মাত্র জরুরি পরিসেবা বহনকারী পরিবহনের জন্য। এদিকে লঞ্চ পারাপার বন্ধ থাকলেও বিকল্প পথে স্পীডবোর্ড, ইঞ্জিন চালিত নৌকায় লোকজনকে পার হতে দেখা গেছে।
এদিকে সকালে বিআইডব্লিউটিসি আরিচা সেক্টরের ডিজিএম জিল্লুর রহমান বলেন, দৌলতদিয়া ঘাটে যাত্রীদের বেশ চাপ রয়েছে । তবে তবে ফেরির সংখ্যা কম থাকায় চাপ অতটা লক্ষ করা যাচ্ছে না। দুই একটা জরুরি পরিসেবা বহনকারী পরিবহনের সময় ফেরিতে অতিরিক্ত যাত্রী আসতে দেখা যাচ্ছে।
যদিও এই ঘাটে ১৬ থেকে ১৭ টি ফেরি সব সময় পরিবহন পারাপারের জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকে। কিন্তু লক ডাউনের কারণে তিন থেকে চারটি ফেরিকে জরুরি পরিসেবা বহনকারী পরিবহনের জন্য ঘাট এলাকায় নোঙর করে রাখা হয়েছে।
অপরদিকে পাটুরিয়া ঘাট এলাকায় গণপরিবহন না থাকায় যাত্রীরা চরম ভোগান্তি স্বীকার হচ্ছেন। তবে বিভিন্ন মোটরসাইকেল ও অন্যান্য ছোট ছোট প্রাইভেট কারে চরে চড়া মূল্যে ঢাকা যাচ্ছে যাত্রী সাধারণ। এছাড়াও কয়েক শতাধিক  ট্রাক ও কাভার্ডভ্যানের দীর্ঘ সারি দেখা গেছে।
Please follow and like us:

আপনার মন্তব্য লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here