শর্ত ভঙ্গ করায় লিজ বাতিল, বহাল তাবিয়তেই স্থাপনা 

শর্ত ভঙ্গ করায় লিজ বাতিল, বহাল তাবিয়তেই স্থাপনা
-মিঠুন গোস্বামী রাজবাড়ীঃ

পানি উন্নয়ন বোর্ডের রাজবাড়ীর কালুখালি উপজেলার সাওরাইল ইউনিয়নের বি-কয়া মৌজার প্রায় দেড় একর জাইগা কৃষি জমি দেখিয়ে ৩ বছরের মেয়াদে শর্তসাপেক্ষে ইজারা নিয়ে ইজারার শর্ত ভঙ্গ করে সেখানে পাকা স্থাপনা গড়ে তুলেছেন ইজারাদার সাওরাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামিলীগের সভাপতি মোঃ শহিদুল ইসলাম আলী ও তার সহযোগী আক্তারুজ্জামান ও রেজওয়ানুল রিপন।

আক্তারুজ্জামান উপজেলার একই ইউনিয়নের ঘাটরা গ্রামের মকছেদ আলীর ছেলে,রেজওয়ানুল রিপন ও একই ইউনিয়নের উত্তর নগরবাতান আমিরুল ইসলামের ছেলে। এরা নাম মাত্র ইজারাদার, মূলত ইজারাদার চেয়ারম্যান মোঃ শহিদুল ইসলাম আলী।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ইজারাদার গন ওই জাইগাতে চুক্তির শর্ত ভঙ্গ করে বালি দিয়ে ভরাট করে পাকা স্থাপনা গড়ে তুলেছেন, সেই সাথে পরিবর্তন করেছে জমির শ্রেণী।
জানা যায় পানি উন্নয়ন বোর্ড রাজবাড়ী থেকে তিন বছরের জন্য কৃষি কাজ অথবা হাঁস-মুরগি পালনের জন্য এ জমি ইজারা দেওয়া হয়। প্রথম বছর মাছ চাষ করলেও পরের বছর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ শহিদুল ইসলাম আলি প্রভাব খাটিয়ে সেখানে পাকা স্থাপনা তৈরি করেন।
অভিযোগ রয়েছে তিনজনের নামে ইজারা থাকলেও মূলত ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ শহিদুল ইসলাম একাই এই স্থাপনা নির্মাণ করে ভোগ দখল করে আসছিল৷ 
 
পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাওবো) রাজবাড়ী কার্যালয় সূত্রে অনুযায়ী ২০১৯ সালের ২৭ জুন শহিদুল ইসলাম আলী, আক্তারুজ্জামান ও রেজওয়ানুল রিপন আলাদা আলাদা ভাবে ১ একর  ৫২ দশমিক ৬৬ শতাংশ জমি ৩ বছর মেয়াদী লিজ গ্রহণ করেন। চুক্তি অনুযায়ী ওই জমিতে কৃষিকাজ, হাঁস-মুরগী পালন ছাড়া অন্য কোন কাজে ব্যবহার করতে পারবে না। উল্লেখ রয়েছে ভরাট কিংবা ভবন বা অন্য কোন প্রকার অবকাঠামো নির্মাণ করা যাবে না। এছাড়াও চুক্তি পত্রে উল্লেখ রয়েছে চুক্তি ভঙ্গ করলে আপনার চুক্তি পত্রটি বাতিল বল গন্য হবে, এমনকি জামানত ফেরত পাবেন না।
গত ২ মে ২০২১ ইং তারিখের পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাওবো) রাজবাড়ী কার্যালয়ের  নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল আহাদ স্বাক্ষরিত স্বারক নং- ১০৬৬, স্বারক নং- ১০৬৭,স্বারক নং- ১০৬৮ পৃথক ৩ টি চিঠিতে ইজারাদারগন চুক্তির মৌলিক শর্ত ভঙ্গ করায় চুক্তিপত্র (লিজ) বাতিল করেন। এমনকি আগামী ৭ দিনের মধ্যে নিজ খরচে স্থাপনা-বালু অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ প্রদান করেন, অন্যথায় জেলা প্রশাসকের সহয়তায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
তবে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিদের্শনা অমান্য করে ওই জমির উপর করা পাকা স্থাপনা ও বালু ভরাট রয়েছে আগের মতোই।
এই বিষয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাওবো) রাজবাড়ী কার্যালয়ের  নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল আহাদ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ায় মুঠোফোন যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমাদের অফিসে ৮ জন করোনায় আক্রান্ত। তবে আমি বি-কয়া মৌজার ওই বিষয়টি জানি না (যদিও তার স্বাক্ষরিত চিঠিতেই লিজ বাতিল করা হয়েছে) অন্য অফিসার ওই বিষয়টি দেখেন। তবে আমি সেই অফিসারের সাথে কথা বলতে চাইলে তিনি বলেন সেও করোনায় আক্রান্ত আপনি অফিসেন কিছুদিন পর কথা হবে।
ইজারাদার সাওরাইল ইউনিয়ন আওয়ামিলীগ সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ শহিদুল ইসলাম আলীর সাথে কথা বলার জন্য তার মুঠোফোনে কল দিলে নাম্বার টি বার বার বন্ধ দেখায়।

Leave a Reply