পাংশায় ৭ বছর বয়সী মেয়েকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ১

পাংশায় ৭ বছর বয়সী মেয়েকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ১

-মিঠুন গোস্বামী রাজবাড়ীঃ

রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার হাবাসপুর ইউনিয়নের চরঝিকরি গ্রামের শরিফুল ইসলামের ৭ বছরের প্রাক-প্রাথমিক ব্র্যাক স্কুলের প্রথম শ্রেণি পড়ুয়া শিশু কন্যা কে জোর পূর্বক ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। ওই শিশু এখন রাজবাড়ী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

জানাযায় গত কাল উক্ত ঘটনা স্থল থেকে  অভিযুক্ত মুন্নাফ শেখ ওরফে বাঙালকে (৪০) আটক করেছে পাংশা মডেল থানা পুলিশ। মুন্নাফ শেখ উপজেলার হাবাসপুর ইউনিয়নের চরঝিকরি গ্রামের (রায়নগর সাদারচর) শ্বশুরবাড়ি এলাকায় বসবাস করছে। চরঝিকরি প্রাক-প্রাথমিক ব্র্যাক স্কুলের প্রথম শ্রেণি পড়ুয়া ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে গণধোলাই করে পুলিশকে খবর দেয় এলাকাবাসী। সংবাদ পেয়ে  পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে মুন্নাফ শেখ ওরফে বাঙালকে আটক করে।

ওই স্কুলছাত্রী বলেছে, আমার মুখ চেপে  ধরে  ঘরের মধ্যে নিয়ে জোরপূর্বক এ ঘটনা ঘটায়।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী প্রতিবেশী রাশিদা খাতুন বলেন, আমি জানালা দিয়ে ঘটনাটি দেখতে পাই। পরে মেয়েটির নাম ধরে ডাক দিলে মেয়েটি ঘর থেকে দৌড়ে বের হয়ে আসে। পরে স্থানীয়রা এসে মুন্নাফ শেখকে ধরে রেখে পুলিশকে খবর দেয়।

এ ঘটনায় শিশুর মা সাবিনা খাতুন  বাদী হয়ে সোমবার (১২ জুলাই) রাতে পাংশা মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের ৯/১ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেছেন, যার নং -৫।

এ বিষয়ে মডেল থানা এস,আই হুমায়ুন কবির রেজা বলেন ধর্ষণ কারীকে ধরে রেখে আমাদের জানালে আমরা গিয়ে মুন্নাফ কে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসি।এই ঘটনায় শিশুটির মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনের মামলা করেছে।

Leave a Reply