রাজবাড়ীতে ভাবীকে বটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যার দায়ে দেবরকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড

রাজবাড়ীতে ভাবী পারভীন বেগমকে বটি দিয়ে কুপিয়ে হত্যার দায়ে দেবর হামেদ আলী মন্ডলকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড, ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও তিন মাসের কারাদন্ডের রায় দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর ) দুপুরে রাজবাড়ীর জেলা ও দায়রা জজ নিলুফার সুলতানা এ রায় দেন। দণ্ডপ্রাপ্ত হামেদ আলী মণ্ডল রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানখানাপুর ইউনিয়নের মল্লিক পাড়া গ্রামের কেসমত মণ্ডলের ছেলে।

মামলার বাদী ও আদালত সূত্রে জানা যায়, রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার উত্তর দৌলতদিয়া এলাকার আব্দুল মোল্লার মেয়ে পারভীন বেগমের রাজবাড়ী সদর উপজেলার খানখানাপুর ইউনিয়নের মল্লিক পাড়া এলাকার কেসমত মণ্ডলের ছেলে হাসেম মণ্ডলের সাথে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে শ্বশুর বাড়ির লোকজনের সাথে পারভীন বেগমের পারিবারিক কলহ চলে আসছিলো।

দীর্ঘদিনের কলহের জের ধরে গত ২০১৪ সালের ৯ আগস্ট সকালে পারভীন বেগমের সাথে দেবর হামেদ আলী,তার স্ত্রী সুফিয়া বেগম, শাশুড়ি হাছিনা বেগম ও ননদ নাছি কলহ সৃষ্টি করে। এক পর্যায়ে পারভীন বাড়ির টয়লেটে পালিয়ে থাকলে সেখানে গিয়ে দেবর হামেদ আলী মণ্ডল ভাবী পারভীন বেগমকে বটি দিয়ে গলায় কোপ দিলে ঘটনাস্থলেই পারভীনের মৃত্যু হয়। ওই দিনই পারভীনের ভাই খোকন মোল্লা বাদী হয়ে রাজবাড়ী সদর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

রাষ্ট পক্ষে মামলাটি পারিচালনা করেন পিপি অ্যড. উজীর আলী শেখ। মামলার অপর তিন আসামির বিরুদ্ধে হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার কোনো প্রমাণ না পাওয়ায় তাদেরকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত।

Please follow and like us: