সম্পত্তি আত্নসাতের উদ্দেশ্যে কাকাতো বোনকে হামলা

চালনার সন্ত্রাসী চিন্ময় রায় ক্ষমতাসীন  দলের ছত্রছায়ায় থেকে মূল্যবান সম্পত্তি আত্নসাতের উদ্দেশ্যে বার বার কাকাতো বোন লাবনী রায়ের উপর বর্বর হামলা চালাচ্ছে। চিন্ময় রায় পিং- মুকুল চন্দ্র রায়, মাতা- বিশাখা রায়, গ্রামঃচালনা, থানা- দাকোপ, জেলা-খুলনা গত ২৮/১০/২০২০ এবং ০৯/১১/২০২০তাং পর পর দুইবার কাকাতো বোন লাবনী রায়, পিং-পরিমল কান্তি রায়, মাতা-অর্চনা রায়, গ্রামঃ পানখালী, থানা-দাকোপ,জেলা- খুলনার উপর বর্বরোচিত হামলা চালিয়েছে। চিন্ময় রায় এবং তার সাঙ্গপাঙ্গদের হামলায় লাবনী রায়ের বাম হাতটি ভেঙ্গে গেছে। ভুক্তভোগী মেয়েটি প্রানে বাঁচতে চালনা ছেড়ে বর্তমানে খুলনা শহরে এক নিকট আত্নীয়ের বাসায় আশ্রয় নিয়েছে। ৫/৬বছর পূর্বে লাবনী রায়ের বড় ভাইয়ের উপরও একইভাবে চিন্ময় রায়  হামলা চালিয়েছিল। বর্তমানে লাবনী রায়ের একমাত্র ছোটভাই জীবন বাঁচাতো দেশ ছেড়ে প্রতিবেশী দেশ ভারতে আশ্রয় গ্রহন করেছে।
ঘটনার অনুসন্ধানে জানা যায় লাবনী রায়ের পিতা পরিমল চন্দ্র রায় ব্রেন স্ট্রোকে আক্রান্ত হয়ে অনেকটা অসহায় অবস্থার মধ্য দিয়ে দিনাতিপাত করছেন। তার কিছু মূল্যবান সম্পত্তির প্রতি লোলুপ দৃষ্টি পড়ে ভাইপো চিন্ময় রায়ের। চিন্ময় রায়ের একটি বোন ধর্মান্তরিত হয়ে মুসলিম হয়ে জুলেখা বেগম নাম নিয়ে স্বামী মোঃ ইউনুস আলীকে নিয়ে লাবনী রায়দের একটি মূল্যবান জমি জবর-দখলে নিয়ে বসবাস করছে। বর্তমানে চিন্ময় রায় এবং তার ধর্মান্তরিত বোন জামাই ইউনুস আলীসহ অন্যান্য সন্ত্রাসী সাঙ্গপাঙ্গ দিয়ে লাবনী রায়ের পরিবারকে উৎখাাতের গভীর ষড়যন্ত্রের ছক কষেছে। চালনা থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করেও তেমন কোন দৃশ্যমান প্রতিকার লাবনী রায়ের পরিবার পাচ্ছেনা। বর্তমানে অসহায় লাবনী রায় এবং তার পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। সন্ত্রাসী চিন্ময় রায় এবং তার ভিন্নধর্মীয় বোন জামাই ইউনুস আলী আবারও যে কোন সময় তাদের উপর হামলা চালাতে পারে তাই ভুক্তভোগী লাবনী রায় এবং তার পরিবার জেলা প্রশাসক এবং   পুলিশ সুপার-খুলনা মহোদয়সহ সরকারের উচ্চ পর্যায়ের দ্রুত হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।
Please follow and like us: