বাগেরহাটের মোংলা বন্দরে নাবিকের মৃত্যু

বাগেরহাট জেলার, মোংলা বন্দরে অবস্থানরত একটি বিদেশী বাণিজ্যিক জাহাজের সেকেন্ড ইঞ্জিনিয়ারের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (২৪অক্টোবর) সন্ধ্যার পরে বন্দরে হারবাড়িয়া এলাকায় একটি মেশিনারিজ জাহাজের কেবিনে অচেতন অবস্থায় দেখে ডাক্তারকে খবর দিলে ডাক্তার তাকে মৃত্যু ঘোষনা করে। এ তথ্য নিশ্চিত করেছে বন্দরের হারবার বিভাগ ও মোংলা থানার সেকেন্ড অফিসার মোঃ জাহাঙ্গির হোসেন।
বন্দরের হারবার বিভাগ জানায়, জাহাজটির সেকেন্ড ইঞ্জিনিয়ার হঠাৎ অসুস্থ্য হয়ে তার নিজ কক্ষে ঘুমিয়ে পড়ে। কিছুক্ষন পর জাহাজটির অন্য নাবিকরা ডাকাডাকী করে কোন সারা শব্দ না পেয়ে বন্দরের হেল্থ শাখায় খবর দেয় জাহাজটির ক্যাপ্টেন। খবর পেয়ে সন্ধ্যায় জাহাজটিতে পোর্ট হেলথের চিকিৎসক গিয়ে তাকে মৃত ঘোষণা করেন। জাহাজ থেকে তার লাশ নামিয়ে সুরতহালের জন্য মোংলা থানায় আনা হচ্ছে। বিদেশী ওই জাহাজটির স্থানীয় শ্রমিক ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে জানা গেছে, বামার ইয়াংগুন বন্দর থেকে ছেড়ে আসা লাইব্রেরিয়া পতাকাবাহী এম,ভি এইচ আর রেভিলেশন নামক জাহাজটি মেশিনারী পণ্য নিয়ে গত বৃহস্পতিবার (২২অক্টোবর) মোংলা বন্দরের হাড়বাড়িয়ার ১নম্বর বয়ায় নঙ্গর করে। ওই জাহাজটিতে থাকা সেকেন্ড অফিসারের দায়িত্বে ছিলেন রোমানিয়ার নাগরিক ভ্যারল তায়ের। জাহাজে তার নিজ কক্ষে অসুস্থ্য অবস্থায় অচেতন হয়ে পরে থাকে ।জাহাজের অন্যান্য নাবিকেরা বিষয়টি জানার পর পোর্ট হেলথের চিকিৎসকদের খবর দেয়। পরে রাতে চিকিৎসক এসে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। তবে কি কারণে কিংবা কিভাবেই তার মৃত্যু হয়েছে তা নিশ্চিত করতে পারেনি কেউ। রাত পৌনে ১১টার দিকে জাহাজ থেকে ওই বিদেশীর লাশ নামিয়ে মোংলা থানা নিয়ে আসা হচ্ছে বলে জানায় হারবার বিভাগ। পোর্ট হেলথের চিকিৎসক ডা: আসিফ বলেন, বিদেশী জাহাজের ওই প্রকৌশলীর মৃত্যুর কারণ আপাতত জানা যায়নি। লাশের সুরতহাল ও ময়না তদন্তের জন্য থানায় এবং মর্গে পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।
মোংলা থানার সেকেন্ড অফিসার জাহাঙ্গির হোসেন জানান, বন্দরের হারবাড়িয়ায় একটি মেশিনারিজ জাহাজের একজন নাবিকের মৃত্যর খবর পেয়েছি কিন্ত কি কারনে মৃত্যু হয়েছে তা যানা জায়নী। এখনও থানায় আনা হয়নী, তবে ময়না তদন্তের পর বোঝাজাবে মৃত্যুর কারন।

Please follow and like us: