বেনাপোলে ধর্ষনের প্রতিবাদে শেখ রাসেল সংসদের আলোক প্রজ্জ্বলন

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে বিবস্ত্র করে বর্বর নির্যাতনের ঘটনাসহ সারাদেশে ঘটে যাওয়া একের পর এক ধর্ষন, নারী নিপীড়নের ঘটনায় স¤প্রক্ত ও পৃষ্ঠপোষকদের গ্রেপ্তার করে এর বিচার এবং নারীর প্রতি সহিংসতার স্থায়ী অবসানের দাবিতে মৌন পদযাত্রা ও আলোক প্রজ্জলন করেছে শার্শা উপজেলার বেনাপোল পৌর ৯ নং ওয়ার্ড শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদ।

শনিবার রাত ৯টার সময় বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগ শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদে সামনে এ প্রতিবাদ আলোক প্রজ্জ্বলন অনুষ্টিত হয়। এরপর ছাত্রলীগ নেতা কর্মীরা চেকপোস্ট বাজারে মৌন পদযাত্রা করেন মোমবাতি জ্বালিয়ে। ছাত্রলীগ নেতারা বলেন ধর্ষকের কোন দল-মত নেই। সে যেই হোক না কেন আমরা তার কঠোর শাস্তি চাই। আলোক প্রজ্জ্বল এর মাধ্যেমে ধর্ষকদের হুশিয়ারি করা হয়।

শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের পরিচালক কামাল উদ্দিন বলেন, ধর্ষক এর কোন দল নেই। সে যেই হোক তাকে আইনে আওয়াতায় এনে কঠোর বিচার করতে হবে। কিছু সরকার বিরোধী চক্র জননেত্রী শেখ হাসিনাকে নানান প্রশ্নের সম্মুখীন করে তোলা তার রাজনীতির জনপ্রিয়তা হৃাসের জন্য আজ ধর্ষনের মত ন্যাক্কারজনক কাজে লিপ্ত হয়েছে। আমরা এই বেনাপোল সীমান্ত থেকে ধর্ষকদের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলে তাদের আাইনের সৌপর্দের জন্য প্রশাসনের কাছে দাবি জানাচ্ছি। আজ দেশের সরকারের উন্নয়ন দেখে একটি চক্র ধর্ষনের মত অপকর্মে লিপ্ত হয়ে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগে সুনাম ক্ষুন্ম করছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের সভাপতি জামাল উদ্দিন, সাধারন সম্পাদক শামিম হোসেন,৯ নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদি হাসান, ৯ নংওয়ার্ড স্বেচ্চাসেবকলীগের সভাপতি ফিরোজ, সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহম্মেদ উজ্জল,সাংগঠনিক সম্পাদক আরমান আলী ও শেখ রাসেল স্মৃতি সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক লিটন আহম্মেদ প্রমুখ।

Please follow and like us: