শালিখায় ১২৪টি পূজামণ্ডপে শুরু হয়েছে দুর্গাপূজার আনুষ্ঠানিকতা

অমল ধবল মেঘ আর বৃত থেকে খুলে আসা উড়ন্ত কাশ ফুল বলে দেয় ঋতুতে এখন শরৎ বিরাজমান।শরৎ মানেই বাঙ্গালী হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের সর্ববৃহৎ ধর্মীয় উৎসব সারদীয় দুর্গাপূজা।কিন্তু এরার দেবীদূর্গার মানব কল্যাণে মর্ত্যে আগমন কার্তিকে মানে হেমন্তে।চণ্ডীপাঠ,ধূপ-ধুনা,পঞ্চপ্রদীপ আর ঢাকের বাদ্যের তালে তালে আজ মহাষষ্টি মধ্য দিয়ে শুরু হবে দুর্গাপুজার মূল আনুষ্ঠানিকতা। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব এর কারনে ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠানের আকার সীমিত করা হয়েছে কমেছে মণ্ডপের সংখ্যা।দুর্গাপুজাকে ঘিরে উৎসবের আমেজ কিছুটা কম পরিলক্ষিত মাগুরা,শালিখা উপজেলার হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে।উপজেলার৭টি ইউনিয়নের মধ্যে ধনেস্বরগাতী ইউনিয়নে ১৬টি, তালখড়ি ইউনিয়নে১৯টি,আড়পাড়া ইউনিয়নে ১৮টি,শতখালী ইউনিয়নে ১০টি,শালিখা ইউনিয়নে ৭টি,বুনাগাতী ইউনিয়নে৪০টি,গঙ্গারামপুর ইউনিয়নে১৪ টি সহ মোট১২৪ টি পূজামণ্ডপে শুরু হয়েছে দুর্গাপুজার আনুষ্ঠানিকতা।সরেজমিনে উপজেলা কেন্দ্রীয় মন্দিরে (আড়পাড়া) গিয়ে দেখা যায় দেবীদুর্গা ও তার বাহক সিংহ,মহিষাসুর,দেবতা কার্তিক, গণেশ,লক্ষী,সরস্বতী তাদের বাহক

Please follow and like us: