শালিখায় ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোক্তা আদমব্যাপারী মোঃ সোহরাব হোসেন (সোরাফ) এর খপ্পরে পড়ে স্বর্বশান্ত একটি পরিবার

মাগুরার শালিখা উপজেলার শতখালী ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোক্তা পাঁচকাহুনিয়া গ্রামের মৃত বারিক মিয়ার পূত্র আদমব্যাপারী মোঃ সোহরাব হোসেন (সোরাফ) এর খপ্পরে পড়ে স্বর্বশান্ত হয়েছে হরিশপুর গ্রামের মৃত মোতালেব মোল্যার পরিবার। মোতালেব মোল্যার পূত্র জিকু রহমানকে মালয়েশিয়ায় পাঠানোর জন্য তিন লক্ষ ৪০ হাজার নিলেও  মোঃ সোহরাব হোসেন (সোরাফ) এর বিদেশ পাঠাতে পারেনি। কোন টাকা ফেরত না দিলে চাপের মুখে গত ০৯-০৯-২০১৫ ইং তারিখে সোরাফ টাকা ফেরত দেয়ার জন্য স্থানীয় সাক্ষীদের উপস্থিতিতে ষ্টাম্পে অঙ্গিকার নামা করে।
ষ্টাম্প সূত্রে আদমব্যাপারী মোঃ সোহরাব হোসেন (সোরাফ) এর মৃত মোতালেব মোল্লার কাছ থেকে ৩,৪০,০০০/টাকা নিলেও তার ছেলেকে বিদেশ পাঠাতে ব্যার্থ হলে টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য অঙ্গিকার নামা করলেই মাত্র ৮০,০০০ টাকা ফেরত দিয়েছে। টাকার শোকে গত ১৯-০৯-২০১৮ইং তারিখে মোতালেব মোল্লা মারা যায়। মোতালেবের পূত্র রুহল, স্ত্রী রুবিয়া বেগম ও মেয়ে খাদিজা খাতুন কেদে-কেদে বলেন,৭০ হাজার টাকা সুদে এনে,এনজিও থেকে দেড় লক্ষ টাকা এনে,জমি বন্ধক ও গরু বিক্রয় করে ৩,৪০,০০০/টাকা আদমব্যাপারী মোঃ সোহরাব হোসেন (সোরাফ) এর দেওয়া হয়েছিল। এখন সুদ – আসল পরিশোধ করতে গিয়ে আমরা স্বর্বশান্ত হচ্ছি। কিন্তু ঐ আদমব্যাপারী মোঃ সোহরাব হোসেন (সোরাফ) এর টাকা ফেরত দিচ্ছে না। সে এখন টাকা ফেরত না দেওয়ার জন্য নানা রকম তালবাহানা করছে এবং আমাদেরকে নানা ভাবে হুমকি দিচ্ছে। ফলে প্রয়োজনে আমরা আইনানুগ ব্যাবস্থা নেব।
Please follow and like us: