নড়াইলে কলেজ ছাত্রীকে হাত- মুখ বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার, হাসপাতালে ভর্তি, মামলা দায়ের

নড়াইল সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজের অনার্স একাউন্টিং তৃতীয় বর্ষের এক ছাত্রীকে হাত- মুখ বাঁধা অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ১৭ অক্টোবর রাত ১০ টার দিকে নড়াইল পৌরসভার কুড়িগ্রামে চিত্রশিল্পী এস.এম সুলতান কমপ্রেক্সের পার্শ্ব থেকে উদ্ধার করা হয়। এই ঘটনায় শিক্ষার্থীর পিতা পুষ্পেন বিশ্বাস ১৮/১০/২০২০ তাডিরখে নড়াইল সদর থানায় অজ্ঞাত ৩ জনকে আসামী করে অপহরন ও চাদাবাজী মামলা দায়ের করেছেন।
এদিকে বেলা ১২ টা পর্যন্ত্ম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই ছাত্রীর জ্ঞান আসেনি। ফলে তার কাছ থেকে প্রকৃত ঘটনা কি ঘটেছে এখনো জানা সম্ভব হয়নি। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে ডাক্তারী পরীক্ষার্থীসহ চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
নড়াইল সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাঃ আফম মশিউর রহমান বাবু বলেন, তার হাতে দড়ির বাধনের দাগ ছিলো এবং ভয়ের মধ্যে ছিলো। তাকে আমরা ফিমেল বিভাগে ভর্তি করেছি, আমাদের মেডিকেল টিম, মহিলা ডাক্তার তার পরীক্ষা  নিরিক্ষি করছে।
নড়াইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রিয়াজুল ইসলাম বলেন, এখনো তার স্বাভাবিক জ্ঞান না আসায় সঠিক তথ্য পাওয়া যাচ্ছেনা, তার জ্ঞান ফিরলে তথ্য নিয়ে সেই মোতাবেক আসামীদের গ্রেফতার করা হবে।
Please follow and like us: