নড়াইলের কৃতি সন্তান খাজা মিয়া তথ্য সচিব হওয়ায় এলাকায় মিষ্টি বিতরণ ও দোয়া অনুষ্ঠান

নড়াইলের কৃতি সন্তান মোঃ খাজা মিয়া তথ্য মন্ত্রনালয়ের সচিবের দায়িত্ব পাওয়ায় সচিবের বাড়ি জেলার কালিয়া উপজেলার পুরুলিয়া ইউনিয়নের ফুলদাহ গ্রামে মিষ্টি বিতরণ এবং স্থানীয় বিভিন্ন মসজিদে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
স্থানীয় পত্রিকা প্রগতিরভাবনার সম্পাদক মোঃ মুরাদ হোসের জানান, কালিয়ার ফুলদাহ গ্রামের কৃতি সন্তান খাজা মিয়ার সচিব হওয়ার খবরে আমাদের এলাকাবাসী উচ্ছসিত। এলাকার লোকজন একে অপরকে মিষ্টি বিতরণ করেছেন। এলাকার কয়েকটি জায়গায় খাওয়া দাওয়ার আয়োজন করা হয়। সচিব মহোদয় নিজ এলাকায় আসলে তাকে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দেওয়া হবে বলেও তিনি জানান। এদিকে নড়াইল জেলা প্রেসক্লাব ও বহুল প্রচারিত অনলাইন পত্রিকা বিডিসি পরিবারের পক্ষ থেকে আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে।
সাংবাদিকবৃন্দ খাজা মিয়া তথ্য মন্ত্রনালয়ের সচিবের দায়িত্ব পাওয়ায় তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।
কালিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের বিগত কমিটির সভাপতি এবং প্রস্তাবিত ‘সুলতান নগর’ উপজেলা বাস্তবায়ন কমিটির সাবেক আহবায়ক মোল্যা ইমদাদুল হক জানান, খাজা মিয়া একজন সৎ মানুষ হিসেবে পরিচিত এবং এলাকার বিভিন্ন সমাজ-সামাজিকতার সাথে জড়িত। নড়াইলের এই কৃতি সন্তান সচিব পদে উন্নীত হওয়ায় এলাকার মানুষ ভীষণ খুশি। তিনি ২০১০-১১ সালে অবহেলিত ওই এলাকার ৭টি ইউনিয়ন নিয়ে বরেণ্য চিত্রশিল্পী সুলতানের নামে ‘সুলতান নগর’ উপজেলা গঠনের জন্য অনেক চেষ্টা করেছিলেন। পরে বিভিন্ন কারনে মাঝখানে তা থেমে যায়।
জানা গেছে, অতিরিক্ত সচিব থেকে সচিব পদে পদোন্নতি দিয়ে তাকে তথ্য সচিব করা হয়েছে। গত ২৬ নভেম্বর জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয় থেকে এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করা হয়। তিনি কালিয়া উপজেলার পুরুলিয়াা ইউনিয়নের ফুলদাহ গ্রামে ১৯৬৫ সালের ৫ জুলাই জন্মগ্রহন করেন। তার বাবার নাম মোঃ সোহরাব মোল্যা। খাজা মিয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান থেকে অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রি লাভ করেন।

Please follow and like us: