নড়াইলে মানব পাচারকারী চক্রের দুই কিশোর সদস্যকে কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত

নড়াইল প্রতিনিধিঃ

নড়াইলে মানব পাচারকারী চক্রের দুই কিশোর সদস্যকে কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। কালিয়া থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতারকৃত দুই অভিযুক্তকে রবিবার (৪এপ্রিল) বিকালে নড়াইলের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মুন্সী মোঃ মশিয়ার রহমানের আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালত এ নির্দেশ দেন।

পুলিশ জানায়, কালিয়া উপজেলার খড়রিয়া গ্রামের বাসিন্দা মোঃ জসিম মোল্যাও তার কয়েক সহযোগি যোগসাজসে একই গ্রামের এক কিশোরীকে বিয়ে করার আশ্বাস ও তার বান্ধবী আর এক কিশোরীকে ভালো কাজ দেয়ার প্রলোভনে বাড়ি থেকে বের করে পাচারের চেষ্টা কালে খুলনার ফুলতলা এলাকার একটি আবাসিক হোটেল থেকে এই দুই কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়। একই সময় জসিমের সহযোগি ঐ হোটেলের ম্যানেজার মোঃ আনাস শেখকে আটক করা হয়। পরে আনাসের দেয়া তথ্য মতে মূল অভিযুক্ত জসিমকে গতকাল শনিবার দিবাগতরাতে নড়াইলের লোহাগড়া থেকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় জসিম, আনাসসহ তিন জনের নামে ভ’ক্তভোগীর বাবা বাদি হয়ে কালিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন। জসিম ইতিপূর্বে ভারতের বোম্বে শহরে থাকার সুবাদে কিশোর বয়সেই মানব পাচারকারি চক্রের সঙ্গে তার যোগসূত্র রয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

Please follow and like us:

আপনার মন্তব্য লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here