সাতক্ষীরার কলারোয়ায় দু’সন্তানকে হত্যা করে নিজে আত্মহত্যার ঘটনায় তিন জনকে আসামি করে থানায় মামলা

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ঃ সাতক্ষীরার কলারোয়ায় শিশু কন্যাকে ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনায় বিচার না পেয়ে দু’সন্তানকে হত্যা করে নিজে আত্মহত্যার ঘটনায় শিশু নির্যাতন ও আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে তিন জনকে আসামি করে থানায় মামলা হয়েছে। শনিবার রাতে আত্মহননকারী গৃহবধু মাহফুজা খাতুনের ভাই মশিউর রহমান বাদি হয়ে কলারোয়া থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন। মশিউর রহমান যশোর জেলার শার্শা উপজেলার বাগআঁচড়া ইউনিয়নের বসতপুর গ্রামের বাসিন্দা।
এ মামলার আসামীরা হলেন, শিশু কন্যা ধর্ষণ চেষ্টাকারি কলারোয়া উপজেলার পূর্ব লাঙ্গলঝাড়া গ্রামের হৃদয় গাজী, তার বাবা লাল্টু গাজী ও তার চাচা আব্দুল আজিজ ওরফে করিম গাজী।
কলারোয়া থানার ওসি মীর খায়রুল কবির জানান, মশিউর রহমান বাদি হয়ে ধর্ষণের চেষ্টার ঘটনায় নারী ও শিশু নির্যাতন এবং আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগে শনিবার রাতে উক্ত তিন জনের নামে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। পারিবারিক সিদ্ধান্তহীনতায় মামলা করতে দেরি হয়েছে বলে ওসি জানান। তিনি আরো জানান, এ মামলার আসামীদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্মা এসআই সোহরাব হোসেন জানান, অবিলম্বে আসামিদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

প্রসঙ্গত ঃ কলারোয়া উপজেলার লাঙ্গলঝাড়া গ্রামের শিমুল সরদার ও মাহফুজা দম্পত্তির মেয়ে মোহনা খাতুনকে(৫)চকলেট খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে গত সোমবার ধর্ষণের চেষ্টা করে প্রতিবেশি লাল্টু গাজীর ছেলে বখাটে কিশোর হৃদয় হোসেন। স্বামী শিমুল সরদার জীবিকার প্রয়োজনে বাইরে থাকায় স্ত্রী মাহফুজা খাতুন এঘটনায় স্থানীয় ইউপি সদস্যসহ গণ্যমান্য ব্যক্তিদের কাছে বিচার না পেয়ে ছেলে মাহফুজুর রহমান (৮) ও মেয়ে মোহনা খাতুনকে (৫) শ^াসরোধ করে হত্যা করে নিজে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেন।

Please follow and like us:

আপনার মন্তব্য লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here