সাতক্ষীরার অপহৃত স্কুল ছাত্রী উদ্ধার ও দোষীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও পথসভা

সাতক্ষীরার অপহৃত স্কুল ছাত্রী উদ্ধার ও দোষীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও পথসভা

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ঃ সাতক্ষীরা সদর উপজেলার শিমুলবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অপহৃত সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী সীমা রানী মিস্ত্রীকে উদ্ধার ও অপহরণকারিদের দৃষ্টামূলক শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন ও পথসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সকাল ১০ টায় সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সামনে সচেতন নাগরিক সমাজের ব্যানারে এ কর্মসুচি পালিত হয়।
সাতক্ষীরা সরকারী মহিলা কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর আব্দুল হামিদের সভাপতিত্বে মানববন্ধন ও পথ সভায় বক্তব্য দেন, সাতক্ষীরা জেলা মন্দির সমিতির সভাপতি বিশ্বনাথ ঘোষ, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সাতক্ষীরা শাখার সভাপতি বিশ্বজিৎ সাধু, সাধারণ সম্পাদক স্বপন কুমার শীল, জয়মহাপ্রভু সেবক সংঘের সভাপতি গোষ্ঠ বিহারী মন্ডল, বাংলাদেশ মানবাাধিকার সংগঠনের সাতক্ষীরা শাখার সভাপতি অ্যাড. ওসমান গণি, সুনাম কমিটির সাতক্ষীরা শাখার সভাপতি অ্যাড. সোমনাথ ব্যাণার্জী, সাংবাদিক রঘুনাথ খাঁ, অপহৃত সীমার বাবা স্বপন কুমার মিস্ত্রী, স্বদেশ এর নির্বাহী পরিচালক মাধব চন্দ্র দত্ত, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জ্যোস্না দত্ত প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, শিমুলবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সপ্তাম শ্রেণীর ছাত্রী সীমা রানী মিস্ত্রীকে পরীক্ষা শেষে বাড়ি ফেরার পথে গত বছরের ৭ ডিসেম্বর অপহরণ করে দক্ষিণ ফিংড়ি গ্রামের শেখ অহিদুল ইসলামের ছেলে বখাটে রায়হানও তার সহযোগীরা। এরপর ৩১ দিন পেরিয়ে গেলেও পুলিশ তাকে উদ্ধার করতে পারেনি। এমনকি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সবুর ও বিদ্যালয় পরিচালনা পরিষদের সভাপতি ফিংড়ি ইউপি চেয়ারম্যান সামছুর রহমানের ভূমিকাও প্রশ্নবিদ্ধ। এছাড়া এ মামলার আসামীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ালেও পুলিশ তাদের খুঁজে পাচ্ছে না বলে দাবি করছেন। বক্তারা এ সময় আগামি তিন দিনের মধ্যে সীমাকে উদ্ধার ও অপহরনকারিদের গ্রেপ্তার করা না হলে আগামি বুধবার থেকে বৃহত্তর কর্মসুচি দেওয়া হবে বলে ঘোষনা দেন।

Please follow and like us: