সাতক্ষীরায় অবৈধ গর্ভপাতের অভিযোগে স্বামী ও দুই নার্সসহ গ্রেপ্তার-৫

সাতক্ষীরায় অবৈধ গর্ভপাতের অভিযোগে স্বামী ও দুই নার্সসহ গ্রেপ্তার-৫

– সাতক্ষীরা প্রতিনিধি ঃ এক সন্তান সম্ভবা মায়ের ইচ্ছার বিরুদ্ধে গর্ভপাত ঘটানোর অভিযোগে সাতক্ষীরায় স্বামী ও সরকারী হাসপাতালের দুই নার্সসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে তাদেরকে জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।
গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, সাতক্ষীরা শহরের পলাশপোলের বাবর আলী (৫০), তার স্ত্রী পারভিন সুলতানা (৪০) তাদের ছেলে নাজমুল ইসলাম সজল (২৮), শহরের মুনজিতপুর এলাকার মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের সেবিকা শিরিনা সুলতানা, একই প্রতিষ্ঠানের সেবিকা কালীগঞ্জ উপজেলার কুশুলিয়া গ্রামের কাজী আজিমুদ্দিনের স্ত্রী মমতাজ শাহানারা লিলি (৩৮)।
শহরের পলাশপোলের নাজমুল ইসলাম সজলের স্ত্রী বৃষ্টি খাতুন ওরফে মিম জানান, যৌতুকের দাবিতে তার স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন তাকে বিভিন্ন সময়ে নির্যাতন চালাতো। সর্বপরি গত ১৪ আগষ্ট সকালে তাকে গর্ভপাত ঘটাতে বাধ্য করাতে ব্যাপক মারপিট করে। একপর্যায়ে তাকে ওই দিন বিকেল তিনটার দিকে সদর থানার পাশে মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে নিয়ে জোরপূর্বক গর্ভপাত ঘটানো হয়। শারীরিকভাবে সুস্থ হওয়ার পর গত পহেলা সেপ্টেম্বর তিনি স্বামী, শ্বশুর, শ্বাশুড়ি ও দু’ সেবিকার বিরুদ্ধে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।
সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দেলোয়ার হুসেন বৃহস্পতিবার দুপুরে এক প্রেসব্রিফং এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বুধবার রাতে জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে উক্ত পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply