নেএকোনার মদনে ৩ বছরের শিশুকন্যা ধর্ষনের অভিযোগ।

-নিজস্ব প্রতিবেদক:

নেত্রকোনার মদন পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের পশ্চিম পাড়া ৩ বছরের মেয়ে শিশু বাচ্চাকে একই গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে আশহাদুল (১৩) কিশোরের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

মেয়ে শিশু বাচ্চাটির অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় স্বজনেরা তাকে মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার সুবর্ণা ইয়াসমিন, মেয়ে শিশুটিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নেত্রকোনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে প্রেরণ করেন।

সরজমিনে গিয়ে এলাকাবাসীর সুত্রে জানা যায়, দেওয়ান বাজার আদর্শ কারিগরি ও বাণিজ্য কলেজের বারান্দায় শিশু বাচ্চাটি অন্যন্য শিশু বাচ্চাদের সাথে খেলাধুলা করছিল।

এমন সময় একই গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে কিশোর আশহাদুল( ১৩) তাহাকে চকলেটের লোভ দেখিয়ে আদর্শ কারিগরি ও বাণিজ্য কলেজের পিছনে নিয়ে ধর্ষণ করে এমন একথা বলে, শিশুটির মা ও খেলার সাথী শিশু সাইফুল্লাহ (৪) ও প্রতিবেশীরা বলেন।

কিশোর আসাদুল (১৩) শিশু বাচ্চাটি কে রাস্তায় এনে ছেড়ে দেয়। শিশুটির কান্না শুনে মা,ঘটনাটি জানতে পেরে কিশোরের পরিবারের কাছে বিচার চাইতে আসলে উল্টো শিশুটির পরিবারকে মারধর করে কিশোরের পরিবারের লোকজন।

এবিষয়ে জানতে চাইলে, কিশোর আশহাদুল (১৩) ও তার বাবা রফিকুল ইসলাম বলেন,পূর্বের শুত্রুতার জেরে আমার ছেলের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠিয়েছে।
এবিষয়ে জানতে মদন থানার (ওসি) ফেরদৌসের আলম বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ রয়েছে, এখন ও কোন অভিযোগ পাইনি অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply