লালমনিরহাটে অসহায় মিতুর পাশে এমপি পুত্র মাহমুদুল হাসান সোহাগ

মাহমুদুল হাসান সোহাগ একজন সমাজসেবকই নন। তিনি সব সময় চেষ্টা করেন অসহায় ও হতদরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়ানোর। তিনি কখনও ক্যান্সার আক্রান্ত মানুষের পাশে আবার কখনও অসহায় মানুষের চিকিৎসায় সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন।  নতুন করে এবার তিনি পাশে দাঁড়িয়েছেন স্বামী হারা এক অসহায় নারীর পাশে। ওই নারীকে দিয়েছেন নগদ অর্থ সহায়তার পাশাপাশি দুর্যোগ সহনীয় প্রকল্প থেকে একটি ঘর করে দেয়ারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।
লালমনিরহকটের হাতীবান্ধা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বিদ্যোৎসাহী সমাজকর্মী রংপুর বিভাগের মাহমুদুল হাসান সোহাগ।
জানাগেছে, তার স্বামী মঞ্জুরুল ইসলাম লালমনিরহাট জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে আউটসোর্সিংয়ে চাকরি করত। কিছুদিন আগে আকস্মিকভাবে রোড এক্সিডেন্টে মঞ্জুরুল মৃত্যু বরণ করেন। তখন মিতুর গর্ভে ৯ মাস বয়সের সন্তান। স্বামী মঞ্জুরুল মারা যাওয়ার ০৩ দিন পর মিতু একটি ছেলে সন্তান জন্ম দেয়। তখন থেকেই মিতুর জীবন যাপন ভীষণ কষ্টের হয়ে পড়ে। মিতুর বাবা আতিয়ার রহমানও দীর্ঘদিন যাবৎ প্যারালাইসিস রোগে আক্রান্ত। এ ধরনের খবর পৌঁছে এমপি পুত্র মাহমুদুল হাসান সোহাগের কাছে। তিনি তাৎক্ষণিকভাবে ওই পরিবারের পাশে দাঁড়ান।
বুধবার (২১ অক্টোবর) দুপুরে মিতুর বাড়ীতে গিয়ে তার পক্ষ থেকে নগদ অর্থ সহায়তার প্রদান করেন উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক কবির হোসেন ও বড়খাতা ইউনিয়ন যুবলীগের সহ-সভাপতি মিলন সরকার।
মিতুর পরিবারকে নগদ অর্থ সহায়তা ছারাও খুব শীঘ্রই একটি পাকা বাড়ি নির্মাণ করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। তার পাশাপাশি তার স্বামী মঞ্জুরুল ডিসি অফিসের আউট সোর্সিংয়ের যে চাকরিটি করতো সেই চাকরি মিতুকে দেওয়ার ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন।
Please follow and like us: