উপকারভোগীরা আত্মনির্ভরশীল হচ্ছেন বললেন নাটোরের ডিসি

উপকারভোগীরা আত্মনির্ভরশীল হচ্ছেন বললেন নাটোরের ডিসি

-গুরুদাসপুর (নাটোর) প্রতিনিধি:
নাটোর জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অসহায় দরিদ্রদের পুনর্র্বাসনের জন্য সারাদেশে আশ্রয়ণ প্রকল্প গ্রহণ করেছেন। এ প্রকল্পের উপকারভোগীদের সকল ধরণের সুযোগ সুবিধা দেওয়া হবে। জেলার সাতটি উপজেলায় ১ হাজার ৯০০ ঘর উপহার পেয়েছেন ভূমিহীন উপকারভোগীরা। এরমধ্যে গুরুদাসপুরে দেওয়া হয়েছে ১৮৫টি ঘর। এসব মানুষদের স্বাচ্ছন্দ্যে জীবনযাপন করার জন্য আত্মনির্ভরশীলভাবে গড়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। এতে নাটোর জেলা সারাদেশের মধ্যে মডেল হবে। সফল হতে আমরা সে চেষ্টাই করে যাচ্ছি।
মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টায় গুরুদাসপুর উপজেলার মশিন্দা ইউনিয়নের আশ্রয়ণ প্রকল্পের ঘর পরিদর্শন ও ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্র্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। এর আগে মশিন্দা ইউনিয়ন পরিষদে নারীদের জন্য ব্লক বাটিকসহ হস্তশিল্প প্রশিক্ষণ কেন্দ্র ও মিনি শিশুপার্কের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক শামীম আহমেদ। উদ্বোধন শেষে উপকারভোগীদের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া উপহার ত্রাণ সামগ্রী, স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী, ফলদ বৃক্ষ ও প্রতিবন্ধীদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ করেন তিনি।
এসময় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. আশরাফুল ইসলাম, গুরুদাসপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. তমাল হোসেন, পৌর মেয়র মো. শাহনেওয়াজ আলী, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আবু রাসেল, জেলা ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা সালাউদ্দিন আল ওয়াদুদ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মো. আলাল শেখ ও রোকসানা আক্তার, মশিন্দা ইউপি চেয়ারম্যান প্রভাষক মোস্তাফিজুর রহমান, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আব্দুর রাজ্জাক সহ স্থানীয় বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। ঘর পরিদর্শনের সময় উপকারভোগীদের সার্বিক খোঁজখবর নেন ডিসি। এসময় ইউএনও তমাল হোসেন বলেন, প্রশাসনের পক্ষ থেকে প্রতিবন্ধী আব্দুর রশিদের চিকিৎসার দায়িত্ব নেওয়া হয়েছে।
ঘর ও হুইল চেয়ারসহ বিভিন্ন উপহার পেয়ে প্রতিবন্ধী আব্দুর রশিদ (৫৬) খুশিতে আবেগপ্রবণ হয়ে বলেন, ‘জীবনে প্রথম এতকিচু পানু। শেখের বিটি হাসিনাক বাঁচায় রাকুক আল­াহ।’

Leave a Reply