বুড়িমারীতে হত্যার পর লাশ পোড়ানোর ঘটনায় গ্রেপ্তার আরও ৬

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারীতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আবু ইউনুস মো. শহিদুন্নবী জুয়েল নামে ঢাকা বিশ্ব বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে ও পুড়িয়ে হত্যার ঘটনায় তিন মামলায় আরও ৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)’র ওসি ওমর ফারুক। এর আগে আরও ১০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।
উল্লেখ্য, লালমনিরহাটের পাটগ্রামের বুড়িমারী স্থলবন্দর কেন্দ্রীয় মসজিদে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গুজব ছড়িয়ে বৃহস্পতিবার শহীদুন্নবী জুয়েলকে পিটিয়ে মারে বিক্ষুব্ধরা। পরে লাশ পুড়িয়ে ফেলা হয়। শহিদুন্নবী জুয়েল রংপুর শহরের শালবন মিস্ত্রীপাড়া এলাকার আব্দুল ওয়াজেদ মিয়ার ছেলে।
তিনি রংপুর ক্যান্ট. পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের সাবেক গ্রন্থাগারিক এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র। গত বছর চাকরিচ্যুত হওয়ায় মানসিক ভারসাম্যহীন হয়ে পড়েন তিনি।
এ ঘটনায় ৩টি মামলা হয়েছে। নিহতের পরিবার, বুড়িমারী ইউনিয়ন পরিষদ ও পুলিশ বাদী হয়ে পৃথক পৃথক এ মামলা তিনটি দায়ের করে। জড়িত থাকার অভিযোগে নতুন গ্রেপ্তারসহ এ পর্যন্ত ১৬ জনকে প্রেপ্তার করে জেল হাজতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।
Please follow and like us: