পুটিমারী গ্রামের অসহায় সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ ভুমিদস্যু রাজু চেয়ারম্যানের নিকট জিম্মি

রবিন্দ্রনাথ কর্মকার ( পাইকগাছা প্রতিনিধি)ঃ  মুজিব বর্ষের আনন্দে সমগ্র দেশ যখন বিভোর তখন পাইকগাছার লতা ইউনিয়নের পুটিমারী গ্রামের অসহায় সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ ভুমিদস্যু রাজু চেয়ারম্যানের নিকট জিম্মি।
পাইকগাছা উপজেলার ৩নং লতা ইউনিয়নের পুটিমারী গ্রামের অসহায় নিরীহ হিন্দু সম্প্রদায়ের শত শত বিঘা পৈতৃক জমি প্রায় ৩০ বছর যাবৎ বংশানুক্রমে পাশ্ববর্তী হরিঢালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবু জাফর সিদ্দিকী রাজু জোর  পূর্বক চিংড়ি ঘের করে দখলে রেখেছে।  একটানা দীর্ঘ ৩০ বছর  জোর পূর্বক চিংড়ি ঘের করার ফলে গ্রামের অনেক পরিবার ইতিমধ্যে নিঃস্ব হয়ে এলাকা ছাড়তে বাধ্য হয়েছে কিন্তু চেয়ারম্যান রাজু শত শত কোটি টাকার মালিক হয়েছেন। তিনি বিদেশেও  গাড়ি বাড়ী ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছেন। বর্তমানে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের অসহায়  মানুষ তাদের  পৈতৃক জমি ফিরে পাওয়ার আশায় প্রশাসনের দ্বারে দ্বারে ঘুরছে। ইতিমধ্যে পুটিমারী গ্রামের নির্যাতিত অসহায় সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ মানব বন্ধন ও পুলিশ সুপার বরাবর স্মারক লিপিও দিয়েছে কিন্তু কোন দৃশ্যমান সুফল এখনো অসহায় সংখ্যালঘু মানুষদের ভাগ্যে জোঠেনি। অদ্য ১৮/০৩/২০২০তাং ৩নং লতা ইউনিয়ন জাতীয় হিন্দু মহাজোট শাখার আহবানে হিন্দু মহাজোট,পাইকগাছা উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দ অসহায় ভুক্তভোগী মানুষদের সংগে এক মতবিনিময় সভা করে। সেখানে ভুক্তভোগীদের মধ্য হতে কয়েক জন তাদের করুন ইতিহাস তুলে ধরেন। তাদের মধ্যে পুটিমারী গ্রামের বিষ্ণুপদ মন্ডল-জমির পরিমাণ ১৪বিঘা, পরিমল বৈদ্য -জমির পরিমাণ ০৯বিঘা, শান্তি মন্ডল -স্বামীঃবিধান মন্ডল -জমির পরিমাণ ৩৫বিঘা, বিষ্ণুপদ দাশ -জমির পরিমাণ ১৬.৫ বিঘাসহ অসংখ্য ভুক্তভোগী মানুষ তাদের কষ্টের কাহিনী ব্যক্ত করেন এ সময় অনেকে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন। দীর্ঘ ৩০বছর পৈতৃক সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত থাকার কারণে পুটিমারী গ্রামের নিরীহ হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ মানবেতর জীবন-যাপন করছে। সন্তানরা লেখাপড়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। অনেকে দেশ ছাড়ার মতো সিদ্ধান্তের কথা জানাচ্ছে। এলাকার মানুষের মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। বিষয়টি দ্রুত ও শান্তিপুর্ণ নিষ্পত্তির জন্য এলাকার অসহায় সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।
Please follow and like us: