আমাকে অকর্মণ্য বলতে পারো

আমাকে অকর্মণ্য বলতে পারো
—— কবি সুব্রত মিত্র

আমাকে তোমার ভালো লাগবে না এই কথা একদম বাস্তব

তুমি যে সুখের প্রজাপতি,
আমিতো বাস্তবের সাক্ষী বয়ে চলা একজন পূর্ণ কান্ডারী,
আমাকে মেনে নেওয়া বড় কঠিন,
আমি চির অপ্রাপ্তির মাঝে চিরসুখী,
আমি সুখের কথাতে না মেতে শান্তির পথে থাকি কান পেতে।

সুখ আর শান্তি একসাথে বসবাস বড় বিড়াল।

তুমি সুখের কাছে বড় অভাবী,
আমি শান্তির কাছে বড় অভাবী,

আমার এই আচরণবিধির তদন্ত কেউ করবে কিনা জানি না
আমি যেন সমাজ;সংসার এবং সমাজ জীবন হতে অনেক দূরে সরে যাচ্ছি
বেঁচে থাকার পরেও কিছু চাহিদা আছে আমার জানা নেই
আমি অকর্মণ্য একটি আস্ত গম্বুজ। নেই চাহিদারও চাহিদা,
তোমাকে খুশি করতে পারিনি কোনদিন এটাই আমার বড় ব্যর্থতা।

এই শুন্য আকাশে কেউ রাখেনি মাথা
অবাক চোখে পৃথিবীর দিকে তাকিয়ে থাকা মানুষটির সাথে কেউ বলেনি কথা
চাওয়া আর পাওয়ার হিসেব করতে করতে সবাই চলে যাবে একে একে
আমি বিশ্রামহীন একটি সরণির ধারে শুয়ে আছি।

এখানেই বেঁচে আছি আজীবন
হয়তো একদিন মৃত্যুরা এসে ডাকবে
যদিওবা চলে যাই; তবু বলে যাই,
শান্তির দূত হয়েও পারিনি সুখী করতে তোমায়
আমি বেঁচে আছি ও ছিলাম পরিশ্রমের এই গুপ্ত পথের সীমানায়।

Please follow and like us:

আপনার মন্তব্য লিখুন

Please enter your comment!
Please enter your name here