কি কথা জাগে আমার ভিতরে

কি কথা জাগে আমার ভিতরে
——–দেবদাস কর্মকার,
আমার ভিতরে কি কথা জাগে বারবার
এখনো হয়নি বলা কতো কথা তারে
মালটার বনে সবুজ পাতার ফাঁকে
হেঁটে হেঁটে গেছে খুলে গোধূলির খোপা তার
নেপথ্যে নিভে যায় দিনের স্বল্পায়ু রোদ।
নদীর এপাশে শিরিষের ডালে ডালে হাওয়া
নতজানু পাতা ঝরে পড়ে সন্ধ্যা রঙের ঘাসে
সুবর্ণ নদী সারাদিন দেখেছে অপরূপ আকাশ
এখোন সময় এসেছে তার সারারাত জলে নক্ষত্র ফোটাবার।
শুধু এই পৃথিবীর বলয়ে বিকীরিত অনিকেত রূপ তার
কতো প্রেমের প্রেরণা,মৃত্যুর স্তর ভেদি জাগে জীবন,
আবার সঞ্চারিত আঘাতে মরে যায় মানুষের সব অনুভব,
সব পাপ পূণ্যের পটভূমি,নিরঙ্কুশ মিশে যায় মাটির ভিতরে
জীবেনের অসমাপ্ত কতো কথকতা।
লালাভ মঙ্গলের উষর মাটিতে কোন প্রেম নাই আর
জীবনের সব উৎসব প্রাণ স্পন্দন নিভে গেছে বুঝি ঝড়ে
পৃথিবীর মানুষের অন্তরদীপ্ত তৃষ্ণার গতি মহালোক থেকে দূরে,
ভাবি কি এক আচ্ছন্ন আকাশে কে তুমি সাজিয়েছো সহস্র নক্ষত্র পুঞ্জ।
সময় গ্রন্থি থেকে নেমে কি অপূর্ব পিপড়ের প্রেম পাতার উপরে,
ক্ষুদে পোকার পাখার উৎসবে কি শিল্পীত রং আছে লেগে,
কি শক্তি কি ক্ষুধা মানবীর শব্দহীন প্রেমে
সময়ের কোলাহল থেকে নেমে আমার ভিতরে কি কথা জাগে বারবার,
নেপথ্যে নিভে যায় বুঝি জীবনের স্বল্পায়ু রোদ
তোমার অন্তহীন অপার্থিব প্রেমে।
———————————————————————-
১১/০৯/২০২১, ২৭ ভাদ্র ১৪২৮

Leave a Reply